হযরত উমর (রাদ্বীয়াল্লাহু আনহু)-এর সু-উচ্চ অবস্থান

রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসল্লাম) বলেছেন: لو كان نبي بعدي لكان عمر بن الخطاب (ولكن أنا خاتم النبيين، لا نبي بعدي. (سنن الترمذي، الرقم: ٣٦٨٦) “যদি আমার পরে কোন নবি আসতো, তবে অবশ্যই উমর হতো। (কিন্তু, যেহেতু আমি নবিদের মোহর, আমার পরে কোন নবি আসবে না।” (সুনানে তিরমিযি #৩৬৮৬) হযরত উমর …

Read More »

দুরুদ এবং সালাম পাঠানোর কর্তব্য

عن عبد الله بن مسعود رضي الله عنه أن رسول الله صلى الله عليه وسلم قال: أولى الناس بي يوم القيامة أكثرهم علي صلاة (سنن الترمذي، الرقم: 484)[1] হযরত আবু উমামাহ (রাদ্বীয়াল্লাহু আনহু) বর্ণনা করেন যে, হযরত রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসল্লাম) বলেছেন, “প্রতি শুক্রবার আমার ওপর প্রচুর পরিমাণে দুরুদ পাঠ …

Read More »

মসজিদের সুন্নাত এবং আদাব – সপ্তম খন্ড‎

(১) মসজিদে হারিয়ে যাওয়া জিনিসপত্রের জন্য কোনো ঘোষণা না দেওয়া।[1] عن أبي هريرة رضي الله عنه قال: قال رسول الله صلى الله عليه وسلم: من سمع رجلا ينشد ضالة في المسجد فليقل: لا ردها الله عليك فإن المساجد لم تبن لهذا (صحيح مسلم، الرقم: 568) হযরত আবু হুরায়রা (রাদ্বীয়াল্লাহু আনহু) …

Read More »

শুক্রবার এক হাজার বার দুরূদ পাঠ করা

عن أنس بن مالك رضي الله عنه قال: قال رسول الله صلى الله عليه وسلم: من صلى علي في يوم الجمعة ألف مرة لم يمت حتى يرى مقعده من الجنة (أخرجه ابن شاهين بسند ضعيف كذا في القول البديع صـ 397) হযরত আনাস (রাদ্বীয়াল্লাহু আনহু) বর্ণনা করেন যে, রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু …

Read More »

মসজিদের সুন্নাত এবং আদাব – ছষ্ঠ খন্ড ‎

(১) যতক্ষণ মসজিদে থাকে ততক্ষণ নফল ইতিকাফের নিয়ত করা।[1] (২) মসজিদে প্রবেশের পর, যারা মসজিদে আছেন যদি তারা কোন ইবাদাতে নিয়োজিত না থাকে, তাদের সালাম দেওয়া। তবে লোকেরা যদি নামাজে মশগুল থাকে তবে সালাম না দেওয়া।[2] (৩) যদি নামাজ আদায়ের মাকরূহ সময় না হয় তবে প্রবেশের সাথে সাথে দুই রাকাত …

Read More »

জুমুআতে দুরুদ পাঠের মাধ্যমে হযরত রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ‎ওয়াসল্লাম) এর দোয়া লাভ করা

عن عمر بن الخطاب رضي الله عنه أن رسول الله صلى الله عليه وسلم قال: أكثروا الصلاة علي في الليلة الزهراء واليوم الأغر فإن صلاتكم تعرض علي فأدعو لكم وأستغفر (القربة لابن بشكوال، الرقم: 107)[1] হযরত উমর ইবনে খাত্তাব (রাদ্বীয়াল্লাহু আনহু) বর্ণনা করেন যে, রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসল্লাম) বলেছেন, “জুমুআর …

Read More »

কুরবানির সুন্নত এবং আদব – পঞ্চম খন্ড ‎

(১) জবাই করার পূর্বে, নিম্নোক্ত দোয়া পাঠ করা সুন্নত: إنِّي وَجَّهْتُ وَجْهِيَ لِلَّذِي فَطَرَ السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضَ عَلَى مِلَّةِ إِبْرَاهِيمَ حَنِيفًا وَمَا أَنَا مِنَ الْمُشْرِكِينَ إنَّ صَلَاتِي وَنُسُكِي وَمَحْيَايَ وَمَمَاتِي لِلَّـهِ رَبِّ الْعَالَمِينَ لَا شَرِيكَ لَهُ وَبِذَلِكَ أُمِرْتُ وَأَنَا مِنَ الْمُسْلِمِينَ اللهُمَّ مِنكَ وَ لَكَ আমি দৃঢ়ভাবে নিজেকে সেই সত্তার মুখাপেক্ষি করছি যিনি আসমান এবং জমিন …

Read More »

কুরবানির সুন্নত এবং আদব – চতুর্থ খন্ড

(১) পশুকে যাতে জবাই করার যায়গায় নমনীয়তা সাথে নিয়ে যাওয়া হয়। পশুকে যাতে টানা হেঁচড়া না করা হয়। عن ابن سيرين قال: رأى عمر بن الخطاب رجلا يسحب شاة برجلها ليذبحها فقال له: ويلك قدها إلى الموت قودا جميلا (مصنف عبد الرزاق، الرقم: 8605)[1] হযরত ইবনে সিরিন (রহিমাহুল্লাহ্) বর্ণনা করেন …

Read More »

দুরুদ এবং সালাম পাঠানোর কর্তব্য

عن عبد الله بن مسعود رضي الله عنه أن رسول الله صلى الله عليه وسلم قال: أولى الناس بي يوم القيامة أكثرهم علي صلاة (سنن الترمذي، الرقم: 484)[1] হযরত রসুলুল্লাহ (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসল্লাম) বলেছেন, “কিয়ামতের দিন আমার সবচেয়ে কাছের মানুষ সেই হবে যে আমার উপর (দুনিয়াতে) সবচেয়ে বেশি দুরুদ পাঠ …

Read More »

কুরবানির সুন্নত এবং আদব – তৃতীয় খন্ড

(১) যদি কেউ সক্ষম হয়, তবে তার জন্য তার পশু নিজে জবাই করা উত্তম। যদি তা সম্ভব না হয়, তবে সে যেন অন্তত পক্ষে তার পশু জবাই হওয়ার সময় উপস্থিত থাকে, শর্তসাপেক্ষে যাতে পুরুষ এবং মহিলাদের মাঝে পর্দা রক্ষা করা হয় (অর্থাৎ, পুরুষ-মহিলাদের সংমিশ্রণ যাতে না ঘটে)। عن علي رضي …

Read More »